আসন্ন দাসের চিহ্ন

আমাদের গত পোস্টে আমরা দেখলাম যে ভাববাদী দানিয়েল ভবিষ্যদ্বাণী করলেন যে মসীহ ‘বিচ্ছিন্ন হবে’ I যাবুরের মাধ্যমে আমরা আমাদের যাত্রার শেষে আসি I তবে আমাদেরকে আরও একটু জানতে হবে I ভাববাদী যিশাইয় (নিচের কালপঞ্জিতে তাকে দেখুন) একটি পল্লবের চিত্রকে ব্যবহার করে মসীহর আগমন সম্বন্ধে ভবিষ্যদ্বাণী করলেন

When Isaiah lived

যাবুরের মধ্যে অন্য ভাববাদীদের সাথে ভাববাদী যিশাইয়কে (পিবিইউএইচ) ঐতিহাসিক কালপঞ্জির মধ্যে দেখানো হয়েছে

কিন্তু এছাড়াও তিনি একজন আসন্ন ব্যক্তির সম্বন্ধে লিখলেন যাকে দাস বলা  হয় I তিনি এই আসন্ন দাসের সম্বন্ধে একটি দীর্ঘ অনুচ্ছেদ লিখলেন I এই ‘দাস’ কে ছিল? তিনি কি করতে যাচ্ছিলেন? আমরা অনুচ্ছেদটিকে বিস্তৃতভাবে দেখি I আমি কিছু মন্তব্য সহকারে, নিখুঁতভাবে এবং সম্পূর্ণরূপে ব্যাখ্যা করার জন্য এটিকে এখানে নিচে পুনরায় বর্ণনা করছি I 

ভাববাদী যিশাইয়র দ্বারা আসন্ন দাস সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী I  যিশাইয় (52:13-53:12)  থেকে সম্পূর্ণ অনুচ্ছেদটি

13 “আমার দাসকে দেখো| সে জ্ঞান অর্জন ও শিক্ষাদানে খুবই সফল হবে| সে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হবে| ভবিষ্যতে লোকে তাকে প্রচুর শ্রদ্ধা ও সম্মান জানাবে|
14 “কিন্তু আমার দাসকে দেখে অনেকের খুব মনোকষ্ট হবে| সে এত বাজে ভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছিল যে অনেকেরই তাকে মানুষ বলে চিনতে কষ্ট হবে|
15 এমনকি অনেক লোক বিহবল হয়ে যাবে এবং একটা কথাও বলতে পারবে না| রাজারা তাকে দেখে বিহবল হয়ে গিয়ে একটি কথাও বলতে পারবেন না| তারা আমার দাসের গল্প শোনেনি, কিন্তু কি ঘটেছিল তা দেখেছিল| সেই গল্প তারা শুনতে না পেলেও বুঝতে পারবে কি ঘটেছিল|”

যিশাইয়52:13-15

আমরা জানি যে এই দাস একজন মানব পুরুষ হবে কারণ যিশাইয় তাকে একটিপুংলিঙ্গ ‘সে’, ‘তাকে’, ‘তার’ বলে উল্লেখ করেছেন I হারোণ (পিবিইউএইচ) যখন ইস্রায়েলীয়দের জন্য বলি দিতেন তখন তিনি লোকেদের উপরে রক্ত ছিটিয়ে দিতেন – এবং তাদের পাপ সমূহ আচ্ছাদিত হত ও তাদের বিরুদ্ধে ধরা হবে  না I যখন এটি বলে যে দাসটি  ‘ছিটিয়ে’ দেবে তখন ভাববাদী যিশাইয় বোঝান যে সেই একই উপায়ে এই দাসলোকেদের উপরে তাদের পাপের জন্য ছিটিয়ে দেবে যেমনহারোণ (পিবিইউএইচ) তার বলি দেওয়ার সময়ে ইসরায়েলীয়দের জন্য করেছিলেন I

তবেদাসটি ‘অনেক জাতির’ উপরে ছেটাবে I অতএব দাস কেবলমাত্র যিহূদিদের জন্য আসছে না I এটি আমাদের ইব্রাহিমকে (পিবিইউএইচ) দেওয়া প্রতিশ্রুতি দেওয়ার কথা মনে করিয়ে দেয় যখন আল্লাহ বললেন (চিহ্ন 1 এবং চিহ্ন 3) যে ‘সমস্ত জাতি সমূহ’ তার বংশধরদের মাধ্যমে আশির্বাদিত হবে I তবে এই ছিটিয়ে দেওয়ার দ্বারা দাসটির ‘চেহারা’ এবং ‘রূপ’ ‘বিকৃত’ এবং ‘ক্ষতিগ্রস্ত’ হবে I যদিও এটি স্পষ্ট নয় এইরকম বিকৃত হওয়ার জন্য দাসটি কি করবে, একদিন জাতি সমূহ ‘বুঝতে পারবে’ I

সত্যিই বিশ্বাস করেছিল, আমাদের ঘোষণার কথা? কে সত্যি সত্যিই গ্রহণ করেছিল প্রভুর শাস্তি?
2 সে প্রভুর সামনে, ছোট গাছের মতে বড় হতে লাগল| সে ছিল শুকনো জমিতে গাছের শিকড়ের বড় হওয়ার মতো| তাকে দেখতে বিশেষ কিছু লাগত না| তার কোন বিশেষ মহিমা ছিল না| যদি আমরা তার দিকে তাকাতাম তবে তাকে ভালো লাগার মত বিশেষ কিছুই চোখে পড়ত না|
3 লোকে তাকে ঘৃণা করেছিল, তার বন্ধুরা তাকে ত্যাগ করেছিল| তার প্রচুর দুঃখ ছিল| অসুস্থতার বিষয়ে তার অভিজ্ঞতা ছিল| লোকরা তার কাছ থেকে লুকিয়ে থাকত| আমরা তাকে ঘৃণা করতাম| আমরা তার কথা চিন্তাও করিনি|

যিশাইয়53:1-3

কোনো কারণের জন্য, যদিও দাস সমস্ত জাতিগনের উপরে ছেটাবে, এছাড়াও সে  ‘দুর্ভোগ’ এবং ‘বেদনার সাথে পরিচিত’ পূর্ণ হয়ে ‘তুচ্ছ্য’ এবং ‘প্রত্যাখ্যাত’   হবে I 

4 কিন্তু সে আমাদের অসুখগুলোকে বয়ে বেড়িযে-ছিল| সে আমাদের যন্ত্রণা ভোগ করেছিল| এবং আমরা মনে করেছিলাম ঈশ্বর তাকে শাস্তি দিচ্ছেন| তার কোন কৃতকর্মের জন্য ঈশ্বর তাকে শাস্তি দিচ্ছেন বলে আমরা মনে করেছিলাম|
5 কিন্তু আমাদেরই ভুল কাজের জন্য তাকে আহত হতে হয়েছিল| আমাদের পাপের জন্য সে ক্ষত-বিক্ষত হয়েছিল| আমাদের কাঙ্খিত শাস্তি সে পেয়েছিল| তার আঘাতের জন্য আমাদের আঘাত সেরে উঠেছিল|

যিশাইয়53:4-5

দাস ‘আমাদের’ যন্ত্রণা হরণ করবে I এছাড়াও এই দাস ‘শাস্তির’ মধ্যে ‘বিদ্ধ’ এবং ‘চূর্ণ’ হবে I এই দাস আমাদের (যারা অনেক জাতি সমূহের মধ্যে আছে) কাছে ‘শান্তি’ নিয়ে আসবে এবং আমাদের ‘সুস্থ’ করবে I   

  6 আমরা সবাই হারিযে যাওয়া মেষের মত ঘুরে বেড়িযেছিলাম| আমরা সবাই আমাদের নিজেদের পথে গিয়েছিলাম যখন প্রভু আমাদের সব শাস্তি তাকে দিয়ে ভোগ করাচ্ছিলেন|

যিশাইয়53:6

আমাদের তৃষ্ণার চিহ্নর মধ্যে আমরা দেখলাম, আমাদের তৃষ্ণা পরিতৃপ্ত করতে আমরা আল্লাহর দিকে ফেরার পরিবর্তে আমরা কত সহজভাবেআমাদের নিজের ‘ভগ্ন কুয়ো’ তে যাই I আমরা ‘বিপথগামী’ হয়েছি আমাদের প্রত্যেকে ‘আমাদের নিজের পথে ফিরেছি’ I এটাই পাপ (=অপরাধ) I

  7 তার সঙ্গে নিষ্ঠুর ব্যবহার করা হয়েছিল এবং সে আত্মসমর্পণ করেছিল| সে কখনও প্রতিবাদ করেনি| মেষকে যেমন হত্যার জন্য নিয়ে যাওয়া হলে সে নালিশ করে না তেমনি সেও চুপচাপ ছিল| মেষ যেমন তার পশম কাটার সময় কোন শব্দ করে না, সেও তেমনি তার মুখ খোলে নি|

যিশাইয়53:7

হেবল, নোহ, ইব্রাহিম, মশি এবং হারোণ (পিবিইউটি) ভাববাদীগনের সাথে তারা মেষগুলোকে বলির মধ্যে উৎসর্গ করতে নিয়ে এসেছিল I তবে দাস স্বয়ং ‘জবাই করা’ মেষশাবকের মতন হবে I তবে সে প্রতিবাদ করবে না বা এমনকি ‘তার মুখ খুলবে’ না I 

8 মানুষ শক্তি প্রযোগ করে তাকে নিয়েছিল এবং তার প্রতি ন্যায্য বিচার করেনি| তাঁর ভবিষ্যত্‌ পরিবার সম্পর্কে কেউ কিছু বলেনি| কারণ সে জীবিতদের দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছিল| আমার লোকদের পাপের জন্য সে শাস্তি পেয়েছিল|

যিশাইয়53:8

এই দাসকে ‘জীবিতদের দেশ’ থেকে ‘বিচ্ছিন করা’ হ’ল I এটাই কি দানিয়েল বোঝাতে চেয়েছিলেন যখন তিনি বললেন যে ‘মসীহ ‘বিছিন্ন’ হবে? হবহু একই শব্দ ব্যবহৃত হ’ল!সেই ব্যক্তি মারা যাবে বলা ছাড়া‘জীবিতদের দেশ থেকে বিচ্ছিন করা’ বলতে কি বোঝায়?

  9 তার মৃত্যু হয়েছিল এবং ধনীদের সঙ্গে তাকে সমাহিত করা হয়েছিল| তাকে দুষ্ট লোকদের সঙ্গে সমাহিত করা হয়েছিল যদিও সে কোন হিংস্র কাজ করেনি| সে কখনও কাউকে প্রতারণা করেনি|

যিশাইয়53:9

তার জন্য যদি ‘একটি কবর’ নির্ধারণ করা হত তবে এই দাস অবশ্যই মারা যেত I সে এক ‘দুষ্ট’ লোক রূপে নিন্দিত হয়ে মারা গেল যদিও সে ‘কোনো হিংসা করে নি’ এবং ‘তার মুখে কোনো ‘ছলনা’ ছিল’ না I

10 প্রভু তাকে মেরে পিষে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন| যদি সে দোষমোচনের বলি হিসেবে নিজেকে উত্সর্গ করে, সে তার সন্তানের মুখ দেখবে এবং দীর্ঘ দিন বাঁচবে| ঈশ্বরের অভিপ্রায় তার হাতে সফল হবে|

যিশাইয়53:10

পুরো নিষ্ঠুর মৃত্যুটি কোনো প্রকারের দুর্ঘটনা বা দুর্ভাগ্য ছিল না I এটি স্পষ্টরূপে ‘তাকে চূর্ণ করার’ ‘সদাপ্রভুর ইচ্ছা’ ছিল I কিন্তু কেন? ঠিক যেমন হারোণের বলি ‘পাপের জন্যউৎসর্গ’ ছিল যাতে করে বলি সমর্পণকারী ব্যক্তি নির্দোষ সাব্যস্ত হতে পারত, এখানে এই দাসের ‘জীবন’ও ‘পাপের জন্য   উৎসর্গ’ I কার পাপের জন্য? ভালভাবে বিবেচনা করা হয় যে ‘অনেক জাতিগণের’ উপরে  ‘ছেটানো’ হবে (উপরের থেকে) এটি অবশ্যই ‘অনেক জাতিগণের’ মধ্যে লোকেদের পাপ হবে I   

  11 তার আত্মা বহু কষ্ট পেলেও সে অনেক ভালো জিনিস ঘটা দেখতে পাবে| সে যেসব জিনিস শিখেছে তা নিয়ে সন্তুষ্ট হবে| আমার ভালো দাসটি অনেক মানুষকে ধার্মিক করবে| সে তাদের অপরাধের দরুণ শাস্তি ভোগ করবে|

যিশাইয়53:11

যদিও দাসের সম্বন্ধে ভবিষ্যদ্বাণীটি ভয়াবহ তবুও এটি লয়কে পরিবর্তন করে এবং অত্যন্ত আশাবাদী এবং এমনকি বিজয়ী হয় I এই ভয়ংকর ‘কষ্ট ভোগের’ পরে (‘জীবিতদের দেশ থেকে বিছিন্ন হয়’ এবং ‘একটি কবর’ নির্ধারিত হয়), এই দাস ‘জীবনের জ্যোতি’ দেখবে I সে জীবনে ফিরে আসবে?! আর এইরকম করার মাধ্যমে এই দাস অনেককে ‘ন্যায়সঙ্গত’ করবে I    

‘ন্যায়সঙ্গত’ করা ‘ধার্মিকতা’ দেওয়ার অনুরূপ I মনে করুন মশির ব্যবস্থা  থেকে ‘ধার্মিকতা’ পেতে একজনকে সর্বদা সমস্ত আজ্ঞা সমূহকে পালন করতে  হত I তবে ভাববাদী ইব্রাহিমের পক্ষে (চিহ্ন 2) ‘ধার্মিকতা’ ‘জমা করা’ বা দেওয়া হয়েছিল I এটি তাকে শুধুমাত্র তার বিশ্বাসের কারণে দেওয়া হয়েছিল I ঠিক একইভাবে এই দাস ন্যায়সঙ্গত করবে, বা ‘অনেকের’ পক্ষে ধার্মিকতা জমা করবে I ধার্মিকতা কি এমনকিছু নয় যাকে আমরা উভয়ই চাই এবং প্রয়োজনবোধ করি?

12 এই কারণে আমি তাকে অনেক লোকের মধ্যে পুরস্কৃত করব| যে সব লোকরা শক্তিশালী তাদের সঙ্গে সমস্ত জিনিসে তার অংশ থাকবে|আমি এটা তার জন্য করব কারণ সে লোকের জন্য নিজের জীবন উত্সর্গ করে মারা গিয়েছিল| তাকে এক জন অপরাধী হিসেবে গণ্য করা হত| কিন্তু সত্যটা হল সে অনেক লোকের পাপ বহন করে ছিল| এবং এখন সে পাপী লোকদের সপক্ষে কথা বলছে|

যিশাইয়53:12

এই দাস ‘মহানদের’ মধ্যে হবে কেননা সে তার জীবনকে স্বেচ্ছায় ‘মৃত্যুর কাছে’ (‘ঢেলে দিয়েছে’) দিয়েছে I আর সে এমন একজন রূপে মারা গেল যেন একজন ‘অপরাধী’ অর্থাৎ একজন ‘পাপী’ রূপে চিহ্নিত হ’ল I দাস এই কারণে এটি করল যাতে সে ‘অপরাধীদের’ হয়ে ‘মধ্যস্থতা’ করতে পারে I একজন মধ্যস্থতাকারী দুই পক্ষের মধ্যে একজন মধ্যবর্তী হয় I দুই পক্ষ এখানে অবশ্যই ‘অনেক লোকেরা’ এবং ‘সদাপ্রভু’ হবেন I এই ‘দাস’ আমাদের হয়ে স্বয়ং আল্লাহর কাছে মধ্যস্থতা বা অনুনয় করতে যথেষ্টরূপে যোগ্য I কে এই দাস? কিভাবে এই সমস্ত জিনিসগুলো ঘটবে? সে কি বিভিন্ন ‘জাতিগণের’ থেকে ‘অনেকের’ হয়ে স্বয়ং আল্লাহর কাছে ‘মধ্যস্থতা’ করতে পারে এবং করবে? আমরা শেষ ভাববাণীকে দেখে যাবুরকে সমাপ্ত করব এবং তারপরে আমরা ইঞ্জিলকে খুলব I  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *