ভাববাদী ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) – এবং দেখায় – প্রকৃত শহীদ

সুরাহ আল-মুনাফিকুম (সুরাহ 63 – ভণ্ডরা) এমন কিছু বর্ণনা করে যারা ভাববাদী মোহম্মদকে পিবিইউএইচ অনুগ্রহপূর্বক সাক্ষী দিয়েছিল কিন্তু পরে তাদেরকে নিরর্থক মিথ্যাবাদী বলে দেখা গিয়েছিল I  

 মুনাফিকরা আপনার কাছে এসে বলেঃ আমরা সাক্ষ্য দিচ্ছি যে আপনি নিশ্চয়ই আল্লাহর রসূল। আল্লাহ জানেন যে, আপনি অবশ্যই আল্লাহর রসূল এবং আল্লাহ সাক্ষ্য দিচ্ছেন যে, মুনাফিকরা অবশ্যই মিথ্যাবাদী।তারা তাদের শপথসমূহকে ঢালরূপে ব্যবহার করে। অতঃপর তারা আল্লাহর পথে বাধা সৃষ্টি করে। তারা যা করছে, তা খুবই মন্দ।

সুরাহ আল-মুনাফিকুন 63:1-2

ভণ্ডদের বিপরীত, সুরাহ আজ-জুমুর (সুরাহ 39 – সেনা) সৎ ‘সাক্ষীদের’ বর্ণনা করে I 

     পৃথিবী তার পালনকর্তার নূরে উদ্ভাসিত হবে, আমলনামা স্থাপন করা হবে, পয়গম্বরগণ ও সাক্ষীগণকে আনা হবে এবং সকলের মধ্যে ন্যায় বিচার করা হবে-তাদের প্রতি জুলুম করা হবে না।

সুরাহ আজ-জুমার 39:69

ভাববাদী ঈসা আল মসীহর পিবিইউএইচ সময়ে, একজন প্রকৃত স্বাক্ষীকে এক ‘শহীদ’ বলে ডাকা হত I একজন শহীদ এমন একজন ছিলেন যিনি ঘটনার সত্যকে প্রতক্ষ্য করেছিলেন I ঈসা আল মসীহ তার শিষ্যদের ‘শহীদ’ বলে ডাকতেন I  

  8 কিন্তু যখন পবিত্র আত্মা তোমাদের কাছে আসবেন, তখন তোমরা শক্তি পাবে আর তোমরা আমার সাক্ষী হবে৷ লোকদের কাছে তোমরা আমার কথা বলবে৷ প্রথমে তোমরা জেরুশালেমের লোকদের কাছে সাক্ষ্য দেবে তারপর সমগ্র যিহূদিযা ও শমরিযায় এমনকি জগতের শেষ সীমানা পর্যন্ত তোমরা আমার কথা বলবে৷’

প্রেরিত 1:8

‘শহীদ’ শব্দটিকে কেবল তাদের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হত যারা সৎ প্রত্যক্ষদর্শী ছিল I 

তবে ‘শহীদ’ শব্দটি আজকাল প্রচুর ব্যবহৃত হয় I আমি এটিকে শুনি যখন চলমান যুদ্ধগুলোর মধ্যে একটিতে কেউ নিহত হয়, বা যোদ্ধারা একে অপরকে হত্যা করার সময়ে গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে কিছু বিরোধে কেউ মারা যায় I তাকে সাধারণতঃ একজন ‘শহীদ’ বলে তার পক্ষের (এবং হয়ত একজন কাফির অপর পক্ষের) দ্বারা উল্লেখ করা হয় I     

তবে এটি কি সঠিক? ইঞ্জিল লিপিবদ্ধ করে ঈসা আল মসীহর সময়ে কিভাবে ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) শহীদ হয়েছিলেন এবং তিনি একটি মহান উদাহরণ দিলেন কিভাবে এটিকে বুঝতে হয় I এখানে এই ঘটনাগুলোকে ইঞ্জিল যেভাবে লিপিবদ্ধ করেছে:

  ই সময় গালীলের শাসনকর্তা হেরোদ, যীশুর বিষয়শুনতেপেলেন৷
2 তিনি তাঁরচাকরদের বললেন, ‘এই লোক নিশ্চয়ই বাপ্তিস্মদাতা য়োহন৷ সে নিশ্চয়ইমৃত লোকদের মধ্য থেকে বেঁচে উঠেছে৷ আর সেইজন্যইএইসব অলৌকিক কাজ করতে পারছে৷
3 এই হেরোদই য়োহনকে গ্রেপ্তার করে কারাগারের মধ্যে শেকলে বেঁধে রেখেছিলেন৷ তাঁর ভাই ফিলিপেরস্ত্রী হেরোদিয়ার অনুরোধেই তিনি একাজ করেছিলেন৷
4 কারণ য়োহন হেরোদকে বার-বার বলতেন, ‘হেরোদিয়াকে তোমার ঐভাবে রাখা বৈধ নয়৷’
5 হেরোদ এই জন্য য়োহনকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন, কিন্তু তিনি লোকদের ভয় করতেন, কারণ সাধারণ লোক য়োহনকে ভাববাদী বলে মানত৷
6 এরপর হেরোদের জন্মদিন এল, সেইউত্‌সবে হেরোদিয়ার মেয়ে, হেরোদ ও তাঁর অতিথিদের সামনে নেচে হেরোদকে খুব খুশী করল৷
7 সেজন্য হেরোদ শপথ করে বললেন য়ে, সে যা চাইবে তিনি তাকে তাইদেবেন৷
8 মেয়েটি তার মায়ের পরামর্শ অনুসারে বলল, ‘থালায় করে বাপ্তিস্মদাতা য়োহনের মাথাটা আমায় এনে দিন৷’
9 যদিও রাজা হেরোদ এতে খুব দুঃখিত হলেন, তবু তিনি শপথ করেছিলেন বলে এবং যাঁরা তাঁর সঙ্গে খেতে বসেছিলেন তারা সেই শপথের কথা শুনেছিলেন বলে সম্মানের কথা ভেবে তিনি তা দিতে হুকুম করলেন৷
10 তিনি লোক পাঠিয়ে কারাগারের মধ্যে য়োহনের শিরশ্ছেদ করালেন৷
11 এরপর য়োহনের মাথাটি থালায় করে নিয়ে এসে সেই মেয়েকে দেওয়া হলে, সে তা নিয়ে তার মায়ের কাছে গেল৷
12 তারপর য়োহনের অনুগামীরা এসে তাঁর দেহটি নিয়ে গিয়ে কবর দিলেন৷ আর তাঁরা যীশুর কাছে গিয়ে সব কথা জানালেন৷

মথি 14:1-12

প্রথমে আমরা দেখি কেন ইয়াহিয়াকে (পিবিইউএইচ) গ্রেফতার করা হয়েছিল I স্থানীয় রাজা (হেরোদ) তার ভাইয়ের স্ত্রীকে গহণ করেছিলেন এবং তাকে তার নিজের স্ত্রী বানিয়েছিলেন – মশির (পিবিইউএইচ)শরিয়া আইনের বিরুদ্ধে I ভাববাদী ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) প্রকাশ্যে বললেন যে এটি অন্যায় ছিল তবে দুর্নীতিগ্রস্ত রাজা ভাববাদীর কথা শোনার পরিবর্তে তাকে গ্রেফতার করলেন I স্ত্রীটি যে এই নতুন বিবাহের থেকে উপকৃত হয়েছিল, যেহেতু সে এখন শক্তিশালী রাজার স্ত্রী হ’ল, ভাববাদীকে চুপ করাতে চাইল তাই সে একটি ভোজ সভায় তার স্বামী রাজা এবং অতিথিদের সামনে তার উঠতি কন্যাকে দিয়ে এক কামুক নৃত্য পরিবেশন করাতে ষড়যন্ত্র করলো I তিনি কন্যার অনুষ্ঠান দেখে এত মুগ্ধ হয়ে গেলেন যে তিনি তাকে প্রতিশ্রুতি দিলেন যা সে চাইবে তাই তাকে   দেবেন I তার মা তাকে ভাববাদী ইয়াহিয়ার (পিবিইউএইচ) মস্তক চাইতে বললেন I অতএব তার সত্য বলার কারণে ভাববাদী ইয়াহিয়াকে কারারুদ্ধ করা হল, মস্তক ছিন্ন করা হ’ল শুধুমাত্র এই কারণে একটি মেয়ের কামুক নৃত্য রাজাকে তার অতিথিদের সামনে ফাঁদে আটকাল I  

এছাড়া আমরা দেখি যে ভাববাদী ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) কারোর সাথে লড়াই করছিলেন না, নাতো রাজাকে বধ করতে চেষ্টা করছিলেন I তিনি শুধুমাত্র সত্য কথা বলছিলেন I একজন দুর্নীতিগ্রস্ত রাজাকে সাবধান করতে ভীত ছিলেন না এমকি যদিও তার কাছে এই রাজার শক্তির বিরুদ্ধে কোনো পার্থিব শক্তি ছিল না I ভাববাদী মশির (পিবিইউএইচ) কাছে প্রকাশিত শরিয়া আইনের প্রতি তার প্রেমের কারণে তিনি সত্য বললেন I আজকের দিনে আমাদের জন্যে এটি একটি উত্তম উদাহরণ যা দেখায় কিভাবে আমরা (সত্য বলার দ্বারা) লড়াই করি এবং কিসের জন্য লড়াই করি (ভাববাদীদের সত্য) I ভাববাদী ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) রাজাক বধ করতে, বিপ্লবকে নেতৃত্ব দিতে বা কোনো যুদ্ধ শুরু করতে চেষ্টা করেন নি I    

ইয়াহিয়ার শহীদত্বর পরিণাম  

তার এপ্রোচ সর্বাধিক প্রভাবী ছিল I রাজা তার খুনে এতটা বিবেক-জর্জরিত ছিলেন যে তিনি ভাবলেন যে ভাববাদী ঈসা আল মসীহর (পিবিইউএইচ) শক্তিশালী শিক্ষা এবং অলৌকিক কার্য ইয়াহিয়ার (পিবইউএইচ) জীবনে ফিরে আসা ছিল I 

ভাববাদী ইয়াহিয়াকে হেরোদের বিশ্বাসঘাতক হত্যা ব্যর্থ গেল i তার পরিকল্পনা সুরাহ অ-ফিলের (সুরাহ 105 – হাথী) একটি উত্তম উদাহরণ I 

  আপনি কি দেখেননি আপনার পালনকর্তা হস্তীবাহিনীর সাথে কিরূপ ব্যবহার করেছেন?তিনি কি তাদের চক্রান্ত নস্যাৎ করে দেননি?তিনি তাদের উপর প্রেরণ করেছেন ঝাঁকে ঝাঁকে পাখী,যারা তাদের উপর পাথরের কংকর নিক্ষেপ করছিল।

সুরাহ আল-ফিল 105:1-4

ঈসা আল-মসীহ (পিবিইউএইচ) এটি ভাববাদী ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) সম্পর্কে বললেন

  7 য়োহনের অনুগামীরা যখন চলে যাচ্ছেন, তখন লোকদের উদ্দেশ্য করে যীশু য়োহনের বিষয়ে বলতে শুরু করলেন, ‘তোমরা মরুপ্রান্তরে কি দেখতে গিয়েছিলে? বাতাসে দোলায়মান বেত গাছ?
8 না, তা নয়৷ তাহলে কি দেখতে গিয়েছিলে? জমকালো পোশাক পরা কোন লোককে? শোন! যাঁরা জমকালো পোশাক পরে তাদের রাজপ্রাসাদে দেখতে পাবে৷
9 তাহলে তোমরা কি দেখবার জন্য গিয়েছিলে? একজন ভাববাদীকে? হ্যাঁ, আমি তোমাদের বলছি, যাকে তোমরা দেখেছ তিনি ভাববাদীর চেয়েও মহান!
10 তিনি সেইলোক যার বিষয়ে শাস্ত্রে লেখা আছে,‘শোন! আমি তোমার আগে আগে আমার এক দূতকে পাঠাচ্ছি৷ সে তোমার জন্য পথ প্রস্তুত করবে৷’মালাখি 3:1
11 আমি তোমাদের সত্যি বলছি, স্ত্রীলোকের গর্ভে যত মানুষের জন্ম হয়েছে তাদের মধ্যে বাপ্তিস্মদাতা য়োহনের চেয়ে কেউই মহান নয়, তবু স্বর্গরাজ্যের কোন ক্ষুদ্রতম ব্যক্তিও য়োহনের থেকে মহান৷
12 বাপ্তিস্মদাতা য়োহনের সময় থেকে আজ পর্যন্ত স্বর্গরাজ্য ভীষণভাবে আক্রান্ত হচ্ছে৷ আর শক্তিধর লোকরা তা জোরের সাথে অধিকার করতে চেষ্টা করছে৷
13 য়োহনের আগমণের পূর্ব পর্যন্ত যা ঘটবে সকল ভাববাদী ও মোশির বিধি-ব্যবস্থার মধ্যে তা বলা হয়েছে৷
14 তোমরা যদি একথা বিশ্বাস করতে রাজী থাক তবে শোন, এই য়োহনই সেই ভাববাদী এলীয়,য়াঁর আসবার কথা ছিল৷
15 যার শোনবার মতো কান আছে সে শুনুক৷

মথি 11:7-15

এখানে মসীহ সুনিশ্চিত করেন যে ইয়াহিয়া (পিবিইউএইচ) একজন মহান ভাববাদী ছিলেন এবং ভবিষ্যদ্বাণী কৃত আসন্ন ‘প্রতুত্কারী’ ছিলেন I স্বর্গ রাজ্যে প্রবেশ আজ টিকে আছে অথচ রাজা হেরোদের কাছে – তখনকার এত শক্তিশালী – কিছুই নেই কারণ তিনি ভাববাদীদের কাছে সমর্পণ করতে প্রত্যাখ্যান করেছিলেন I

ভাববাদী ইয়াহিয়ার (পিবিইউএইচ) সময়ে হিংস্র লোকেরা ছিল যারা অন্যদের মস্তক ছিন্ন করত ঠিক সেই ভাবে হিংস্র লোকেরা আছে যারা আজকের দিনে এইরকম করে I এই হিংস্র লোকেরা এমনকি স্বর্গ রাজ্যে ‘অভিযান’ করছে I তবে তারা এতে প্রবেশ করবে না I স্বর্গ রাজ্যে প্রবেশ করার অর্থ হ’ল ইয়াহিয়ার (পিবিইউএইচ) পথকে গ্রহণ করা – সত্যবাদী সাক্ষী হওয়া I আমরা যদি তার উদাহরণ অনুসরণ করি এবং যারা হিংস্র তাদের উদাহরণ সমূহ নয় তবে আমরা জ্ঞানী হই I 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *